বুধবার, নভেম্বর ৩০, ২০২২
Homeআমেরিকানিউইয়র্কে এ বছরের শারদীয় উৎসব

নিউইয়র্কে এ বছরের শারদীয় উৎসব

নিউইয়র্ক ৩ অক্টোবর। বব দেবাশীষ দাস:
প্রকৃতি এ বছরের শারদীয় উৎসবে উৎসব প্রেমী দের পক্ষে ছিলো না, এক নাগাড়ে ঝড় আর বৃস্টির মাঝেই গত দুদিন ধরে অনুষ্ঠিত হয়ে চলেছে শারদীয় দুর্গোৎসব, উৎসবের বাকী আরো তিন দিন, বৈরী আবহাওয়া কে উপেক্ষা করে অগুনিত মানুষের প্রচুর সমাগম দেখা গেল প্রায় সব গুলো পুজা মন্ডপে, এবারের এই শারদ উৎসব শুরু হয়েছে সপ্তাহের উইক এন্ডে, শনিবার আর রবিবার হওয়ায় এমনিতেই আশা করা গিয়েছিলো নিউইয়র্কের পাঁচ বোরো এবং পাশের রাজ্য নিউজার্সি ও কানেক্টিকাট থেকে অসংখ্য দর্শনার্থী দের সমাগম ঘটবে এবারের সবগুলো পুজা মন্ডপে, কিন্তু বিচিত্র প্রকৃতি এতে বাধ সেধে বসে, তুমুল ব্রিস্টিপাত, ঝোড়ো হাওয়া আর নিন্ম তাপ মাত্রা সমগ্র উৎসবের সাথে যেন বিরুপ আচরন করে বসলো, এতসব দুর্যোগ কে ও পায়ে ঠেলে আজ ও গতকাল হাজারো নারী, পুরুষ, কিশোর, কিশোরী দের উৎসব স্থলে আগমন আয়োজক দের আশার সঞ্চার করেছে, দর্শনার্থীদের মাঝে কমতি ছিলো না উৎসাহ ও উদ্দীপনার, প্রতিটি মন্দিরে আয়োজনকারী দের চেস্টার কোন ত্রুটি ছিলো না প্রসাদ বিতরন থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনার ক্ষেত্রে।

জনমুখে শোনাগেলো এ বছর সুধু নিউইয়র্ক শহরেই নাকি বাইশটি দুর্গা পুজার আয়োজন হয়েছে, অবশ্য সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক থাকলেও সামগ্রিক অনুষ্ঠান নিয়ে কোন বিতর্ক এখনো পর্যন্ত চোখে পড়েনি, নিউইয়র্কের কুইন্স কাঊন্টির জ্যাকশন হাইটসের বাঙ্গালী অধ্যুসিত এলাকায় এবার প্রথম বারের মত ডাইভারসিটি প্লাজায় সকল ধর্মমত নির্বিশেষে বেংগলি ক্লাব আয়োজিত দুর্গা পুজা কমিউনিটির সবার কাছে বিশেষ এক আকর্ষণ প্রতিষ্ঠিত করেছে, অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সমৃধ্ব কতিপয় ব্যক্তিবর্গ এ পুজার আয়োজক, এদের মাঝে হিন্দু ধর্মাবলম্বী যেমন আছেন তেমনি ভাবে মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ধর্মের মানুষরাও সার্বিক ভাবে সম্পৃক্ত, নিউইয়র্কের বৃহত্তর বাঙ্গালী অধ্যুষিত সমাজে এই পুজা এক বিশেষ মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হবে, এ যেন মনে করিয়ে দেয় সেই বিখ্যাত উক্তি ” ধর্ম যার যার উৎসব সবার” উদ্দোক্তারা এই প্রবাসে যে সম্পৃতির নজির স্থাপন করলেন এ এক বিরল ঘটনা বলে বিবেচিত হবে আগামী প্রজন্মের কাছে ।

এ ছাড়া ও জ্যাকশন হাইটসের অনতি দূরে বাহাত্তর স্ট্রিটে ওম শক্তি মন্দির, ছিয়াত্তর স্ট্রিট উডসাইডের সত্যনারায়ন মন্দিরে জ্যকশন হাইটস পুজা ফাঊন্ডেশন এর আয়োজন, দিব্যধামে এবং গুলশান টেরেসে ও অত্যান্ত জাঁকজমকের সাথে পুজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে, জ্যামাইকার কালী মন্দিরে, লিবারটি এভেন্যুর মহামায়া মন্দিরে,করোনার বাংলাদেশ হিন্দু মন্দিরে, হিলসাইডের তাজমহল পার্টী সেন্টারে, ১২৭ রিছমন্ড হিল এ হরিচাদ গুরুচাদ মতুয়া মিশন, হিলসাইডে বাবা বালক নাথ আশ্রম , শ্রীকৃষ্ণ ভক্ত সঙ্ঘর পুজা হচ্ছে হিলসাইডের ১৬৪ স্ট্রীট এ , বেলরোসের দেবালয় মন্দির ও কুইন্স ভিলেজের সনাতনী সেবাশ্রমে পুজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment - spot_img