সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২
Homeআমেরিকাবাইটপোর ‘বাবা দিবস’ উদযাপন ও বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত

বাইটপোর ‘বাবা দিবস’ উদযাপন ও বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত

গত ১৯ জুন ২০২২ রোববার, বাংলাদেশী এমেরিকান আইটি প্রফেশনালস এসোশিয়েশন(বাইটপো)’র উদ্যোগে ফাদার্স ডে ২০২২ উদযাপন ও বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত হয় উডব্রিজ ভার্জিনিয়ায়। বাইটপোর সভাপতি সামছুদ্দীন মাহমুদ ও কার্যকরী সদস্য স্যাম রিয়ার সার্বিক ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে কেক কেটে ফাদার্স ডে ২০২২ এর উদ্ভোদন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজির (ওয়াস্ট)এর চ্যান্সেলর ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিফ। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভয়েস অব এমেরিকার প্রাক্তন অনুষ্ঠান প্রধান সরকার কবিরুদ্দীন, বিশ্বের সর্ববৃহৎ টেকনিক্যাল প্রফেশনাল সংগঠন ইনস্টিটিউট অব ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার(আইইইই) নির্বাচিত সভাপতি প্রফেসর সাইফুর রহমান, মনমাউথ ইউনিভার্সিটি অব নিউজার্সীর স্কুল অব সোসাল ওয়ার্ক এর প্রফেসর ডঃ গোলাম এম মাতবর, ই-লার্ণিং বই এর লেখক ডঃ বদরুল হুদা খান, কপিন স্টেট ইউনিভার্র্সিটির ন্যানোটেকনোলজির প্রফেসর ডঃ জামাল উদ্দিন, বিশিষ্ট ফাইনাসন্সিয়াল এডভাইজর শাহ ফিরোজ রানা, বিজনেস ম্যাগাজিনের সম্পাদক এনাম আহমেদ ও উপমহাদেশের বিখ্যাত সংগীত শিল্পী শংকর চক্রবর্তী ।

অনুষ্ঠানে সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন, সংগঠনের সাধারন সম্পাদক হাবীবউল্লাহ ভুইয়া কচি, সহ সভাপতি সাইফুল্লাহ খালেদ, যুগ্ম সম্পাদক আইয়ান রশীদ, নিজামউদ্দীন ভু্ইয়া, মোহাম্মদ হায়দার, কচি খান, হাসান চৌধুরী, মিজানুর রহমান ভুইয়া ও স্যাম রিয়া।

অনুষ্ঠানে প্রায় ৪ শতাধিক বাংলাদেশী উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। কেক কেটে ফাদার্স ডে উদযাপন করা হয়। খেলাধুলা পর্ব পরিচালনা করেন কচি খান। পুরুষদের মাসটেজ লাগানো, মহিলাদের মিউজিক পিলো, বাচ্চাদের মার্বেল দৌড় সহ অন্যান্য খেলাধুলায় বিজয়ীদের পুরষ্কার করেন সরকার কবীর উদ্দিন, ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিফ, প্রফেসর সাইফুর রহমান ও প্রফেসর ডঃ গোলাম এম মাতবর ।

গানের অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন হাসান চৌধুরী। মেট্রোবাউল এর জাফর রহমানের সুরের মুর্চনায় দর্শকরা হারিয়ে যান অন্যভুবনে। এছাড়াও শোয়েব রহমান, পুলিবালা, তারেকুর রহমান, তালহা রহমান সহ অন্যান্য শিল্পী বুন্দ সন্ধ্যা পর্যন্ত গান পরিবেশন করেন।

দুপরের খাবারের ম্যানেুতে ছিল ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রামের মেজবানী গরুর মাংশ, দেশী মুরগী , তরকারী, সাদা ভাত ও মুগ ডাল। এছাড়া সকালের নাস্তা ও বিকালের স্ন্যাকস ও পরিবেশন করা হয়। খাবারের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন স্যাম রিয়া। তাকে সহযোগিতা করেন মোহাম্মদ হায়দার, আইয়ান রশীদ, নিজামউদ্দিন ভুইয়া ও মোহাম্মদ রহমান।

লটারীতে প্রথম পরষ্কার ২৪ ক্যারেট স্বর্ণ চেইন লাভ করেন শাবানা ভুইয়া, দ্বিতীয় পুরষ্কার ফসিল ঘড়ি পান তালহা রহমান, তৃতীয় পুরষ্কার ফসিল ঘড়ি পান মহসিনা জান্নাত রিমি।

অনুষ্ঠানটিতে সার্বিক সহযোগিতা করেন ইন্জিনিয়ার আবু বকর হানিফ, শাহ ফিরোজ মোহাম্মদ কাজল, শিরিন আকতার, কচি খান, এন্থনী পি গোমেজ, মোহসিনা জান্নাত রিমি, জাহানারা ভুইয়া, প্রিয়লাল কর্মকার, মিজানুর রহমান ভুইয়া, এজেএম হোসেন, হাসান চৌধুরী, হারুন অর রশিদ, আবু রুমী, হিরন চৌধুরী, জাকির হোসাইন, তুহিন ইসলাম, জাহিদ মলি, তৌফিক মতিন, লিটু চৌধুরী, কবির পাটোয়ারী, তালহা রহমান, মোহাম্মদ মোস্তফা, করিম সালাউদ্দিন, তারেকুর রহমান জনি, শোয়েব রহমান, মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, মুনির হোসেন, মোহাম্মদ রহমান, সোহরাব হোসেন, ইকবাল চৌধুরী, হাফিজ রহমান, মোহাম্মদ অভি, জীবক বড়ুয়া, দেওয়ান আরশাদ আলী বিজয় ,মোহাম্মদ মোল্লা প্রমুখ।

করোনা উত্তর অবস্থায় অত্যন্ত জাকজমক পুর্ণ ভাবে আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠানে চার শতাধিক লোক উপস্থিত থেকে সকল পিতাকে সম্মানিত করা হয়। অতিথি বৃন্দ তাদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তুলে ধরে বলেন, খুব অল্প সময়ের মধ্যে বাইটপো তাদের কার্যক্রমের মাধ্যমে ওয়াশিংটন ডিসি তথা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে একটি জনপ্রিয় সংগঠনে পরিণত হয়েছে। এ জন্য উনারা সংগঠনের বর্তমান নেতৃত্ব বিশেষ করে সভাপতি বিশিষ্ট লেখক সামছুদ্দীন মাহমুদের গতিশীল নেতৃত্বের ভূয়শী প্রশংসা করেন। উনারা আগামী দিনে সকল কার্যক্রমে বাইটপোকে সার্বিক সহযোহিতা প্রদানের আশ্বাস দেন। বিশেষ করে অনুষ্ঠানটি লিসেলভাসিয়া পার্কে হওয়ার কথা থাকলেও বিশেষ কারনে পার্ক কর্তৃপক্ষ পার্কটি বন্ধ করে দেয়ার তাৎক্ষনিক সিদ্ধানে পার্ক সংলগ্ন সভাপতির বাসভবনের লনে এত দ্রুত সময়ে অনুষ্ঠানটি স্থানা্ন্তর ও সুচারুরুপে পালন করার জন্য সভাপতি সামছুদ্দীন মাহমুদ, স্যাম রিয়া সহ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দের ভুয়সী প্রশংসা করেন।

সবশেষে সংগঠনের সভাপতি সামছুদ্দীন মাহমুদ উপস্থিত সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আগামী দিনগুলোতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। আর অতিথিবৃন্দ ও দুপুর একটা থেকে সন্ধ্রা ৯টা র্পন্ত মেজবান স্বাদ আস্বাধন করে, একটি সফল ও সুন্দর অনুষ্ঠান উপভোগ করে তৃপ্তির ঢেকুর তুলতে তুলতে আয়োজকদের ধন্যবাদ দিয়ে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment - spot_img