বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
Homeপ্রধান সংবাদরাজধানীর হাতিরপুলে বহুতল ভবনে আগুন ২ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

রাজধানীর হাতিরপুলে বহুতল ভবনে আগুন ২ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর হাতিরপুল কাঁচাবাজার এলাকায় রাজ কমপ্লেক্স নামে একটি ছয়তলা ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যা ৬টা ৪ মিনিটে ভবনের দ্বিতীয় তলার কাপড়ের গোডাউন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিট ৮টা ৩৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ভবনের ছাদ থেকে একই পরিবারের ৪ জনসহ ৭ জনকে উদ্ধার করা হয়। ফায়ারের সঙ্গে যুক্ত হয় নৌবাহিনী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। ভবনে ছিল কার্পেট এবং কাপড়ের গোডাউন।

সরেজমিনে দেখা যায়, ভবনের দুই পাশের দেওয়াল ভেঙে ফায়ার ফাইটাররা প্রবেশ করেন। এছাড়া ভবনটির প্রধান প্রবেশপথ দিয়ে কয়েকজন ফায়ার সার্ভিসের কর্মী দ্বিতীয় তলায় প্রবেশ করে জানালার কাচ ভেঙে দিচ্ছেন। যাতে করে ভবনের ভেতরে থাকা ধোঁয়া বের হতে পারে। অক্সিজেন মাস্ক ও বিশেষায়িত পোশাক পরে ধোঁয়ার ভেতরে প্রবেশ করেন তারা। এর মাঝে বেশ কয়েক বস্তা বালুও ভেতরে প্রবেশ করানো হয়েছে। [৫] ভবনের সামনে উৎসুক জনতা ভিড় করে। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কাছ করে পুলিশ ও র‌্যাব। তবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আরেফিন জানান, ভবনটির নিচতলায় এবং তৃতীয়তলায় কার্পেটের মার্কেট ছিল। দ্বিতীয় তলায় ছিল কাপড়ের গোডাউন। চারতলায় বাসা আর পাঁচ-ছয় তলায় ছিল ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান।

ভবনটির চার তলার বাসিন্দা খুকুমনি বলেন, পৈতৃক সূত্রে পাওয়া ওই ফ্ল্যাটে তিনি তার মা ও ২ ছেলেকে নিয়ে থাকতেন। আমি ইফতারের জন্য সবকিছু প্রস্তুত করছিলাম। হঠাৎ আগুনে পোড়া গন্ধ পাই। জানালা দিয়ে তাকিয়ে দেখিয়ে দুই তলা থেকে উপরের দিকে ধোঁয়া উঠছে। সাথে সাথে আমার বড় ছেলেও বিষয়টি দেখতে পেয়ে উপরের দিকে যাওয়ার জন্য দরজা খুলে দেয়। কিন্তু তখন সবকিছু ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন। আমার বৃদ্ধ মা এবং ২ ছেলে কোনো রকমে উপরের দিকে উঠে যাই। সেখানে তালা ভেঙে ছাদে আশ্রয় নিই। আল্লাহর রহমতে কোনো রকমে বেঁচে এসেছি।

নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন বলেন, ভবনটির মালিকানা নিয়ে কয়েকটি পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে। একটি পক্ষের ধারণা শত্রুতার বশবর্তী হয়ে আগুন লাগানো হতে পারে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক মো. আনোয়ারুল হক বলেন, আগুনের সূত্রপাত বা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত শেষে বলা যাবে। ভবনটিতে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ও ভেন্টিলেটর না থাকায় আগুন নেভাতে কিছুটা বেগ পেতে হয়েছে। ছাদ থেকে ৫ থেকে ৭ জনকে আমরা উদ্ধার করি। তবে আগুনে হতাহতের খবর আমরা পাইনি।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment - spot_img