শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
Homeপ্রধান সংবাদরাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বিজয় দিবসের কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বিজয় দিবসের কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার বিজয় দিবস পালন উপলক্ষ্যে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ ও প্রত্যক্ষ করেছেন।
সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের সর্বাধিনায়ক রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের বিজয়ের ৫১ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে অভিবাদন গ্রহণ ও কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন।
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক ডিভিশন এ কুচকাওয়াজের আয়োজন ও পরিচালনা করে।
রাষ্ট্রপতি হামিদ একটি খোলা জীপে করে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্যারেড কমান্ডার ও নবম পদাতিক ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কমান্ডিং (জিওসি) এবং সাভারের এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ শাহীনুল হক।
এ কুচকাওয়াজে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, বিমানবাহিনী, পুলিশ, কোস্টগার্ড, আনসার, আধাসামরিক বোর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) অংশগ্রহণ করে।
রাষ্ট্রপতি হামিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্যারেড গ্রাউন্ড ত্যাগ করার আগে কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ করা কন্টিনজেন্ট কমান্ডারদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।
এ উপলক্ষে প্যারেড গ্রাউন্ড বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় চার নেতা, সাতজন বীরশ্রেষ্ঠের ছবি এবং পদ্মাসেতু ও মেট্রোরেলের ছবিসহ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমের ছবি দিয়ে সাজানো হয়।
এর অংশ হিসেবে প্যারেড গ্রাউন্ডের পাশের সড়কও মুক্তিযুদ্ধ ও বিজয় দিবসের চেতনা তুলে ধরে বিভিন্ন ব্যানার ও ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়।
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ ও নাতনি সামা হোসাইন এবং আমন্ত্রিত অতিথিরা সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের বিভিন্ন রেজিমেন্ট ও কন্টিনজেন্টের কুচকাওয়াজ, সমরাস্ত্র প্রদর্শন, আর্মি এভিয়েশন, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও নেভি এভিয়েশনের বিভিন্ন হেলিকপ্টারের দর্শনীয় ফ্লাই-পাস্ট উপভোগ করেন।
পরে সুসজ্জিত অশ্বারোহী বাহিনী ও ডগ স্কোয়াড দল প্যারেড গ্রাউন্ডে তাদের উপস্থিতি জানান দেন।
কর্মসূচির শেষ পর্যায়ে সেখানে দর্শনীয় বিমানচালনা প্রদর্শন করা হয়।
সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষ প্যারেড গ্রাঊন্ডে উপস্থিত হয়ে, টেলিভিশন এবং বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলা এ দর্শনীয় কুচকাওয়াজ উপভোগ করেন।
এরআগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাষ্ট্রপতি প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছালে তাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, সংসদ সদস্য ও তিন বাহিনীর প্রধানগণ এবং সশস্ত্র বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তারা স্বাগত জানান।
অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি ফয়েজ সিদ্দিক, মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, রাজনৈতিক নেতা, সংসদ সদস্য, বিদেশি কূটনীতিক, সামরিক ও বেসামরিক সিনিয়র কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।
৫১ বছর আগে পাকিস্তানী দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে নয় মাস মুক্তিযুদ্ধ করে বাংলাদেশ এই দিন বিজয় অর্জন করে।
১৯৭১ সালের এই দিনে হানাদার পাকিস্তানী সামরিক বাহিনী যৌথ বাহিনীর কাছে পরাজয় স্বীকার করে এবং পাকিস্তানী বাহিনীর কমান্ডিং অফিসার জেনারেল এএকে নিয়াজি তার বাহিনীর সকল সদস্যেকে নিয়ে আত্মসমর্পণ করে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment - spot_img