শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪
Homeপ্রধান সংবাদশুজাইয়া-জেনিনে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ, ইসরাইলি সেনাসহ নিহত ১৭

শুজাইয়া-জেনিনে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ, ইসরাইলি সেনাসহ নিহত ১৭

শুজাইয়াতে এক অভিযানে ইসরাইলের ১০ সেনাসহ বহু হতাহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাসের সামরিক শাখা কাসসাম ব্রিগেড। অন্যদিকে জেনিনে অভিযান চালিয়ে ৭ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরাইলি বাহিনী।

শুক্রবার পূর্ব গাজা শহরের পার্শ্ববর্তী শুজাইয়ার আল-নাজাজ সড়কের কাছে ওই অভিযান চালানো হয় বলে জানায় আল জাজিরা।

এদিন টেলিগ্রামে দেওয়া এক বিবৃতিতে কাসসাম ব্রিগেড জানিয়েছে, ইসরাইলি সেনাদের দখল করা একটি ভবনকে লক্ষ্যবস্তু করে রকেট হামলা চালায় তাদের যোদ্ধারা। ওই ভবনে প্রবেশ করার আগেই, দূরবর্তী স্থান থেকে রকেট ছুড়ে ওই ভবনে থাকা দখলদার সেনাদের হত্যা করা হয়েছে।

পরে কাসসাম ব্রিগেডের যোদ্ধারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার আগে, ভবনটির ভেতরে একটি বিস্ফোরণ ঘটায়। ওই বিস্ফারণে হতাহত সেনাদের সরিয়ে নিতে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হয়েছে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

কাসসাম ব্রিগেডের ওই অভিযানে অন্তত ১০ জন ইসরাইলি সেনা নিহত এবং আরও বেশ কয়েকজন সেনা আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে আল-জাজিরা।

এছাড়াও কাসসাম ব্রিগেডের যোদ্ধারা ইয়াসিন-১০৫ রকেট দিয়ে ইসরাইলের একটি মেরকাভা-ফোর ট্যাঙ্কেও আঘাত হেনেছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

এদিকে ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অধিকৃত পশ্চিম তীরের জেনিনে ইসরাইলি অভিযানে অন্তত ৭ জন নিহত হয়েছেন।

অন্যদিকে লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ জানিয়েছে, তারা অধিকৃত কাফার শুবা পাহাড়ে ইসরাইলি সামরিক স্থাপনায় দুটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

গোষ্ঠীটি শুক্রবার এক টেলিগ্রাম বার্তায় বলেছে, হামলাগুলো স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে পৌনে ১টার মধ্যে চালানো হয় এবং সেগুলো সরাসরি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়।

গত ৭ অক্টোবর দক্ষিণ ইসরাইলে হামাসের হামলার প্রেক্ষিতে গাজায় যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরাইল ও হিজবুল্লাহর মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই হামলা পালটা হামলার ঘটনা ঘটছে। গোষ্ঠীটি বৃহস্পতিবার ইসরাইলি ভূমি লক্ষ্যে ২ শতাধিক রকেট ও ড্রোন হামলা চালায়। এতে বেশ কয়েকজন ইসরাইলি সেনা হতাহত হন বলে জানা যায়।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment - spot_img