শুক্রবার, এপ্রিল ১২, ২০২৪
Homeপ্রধান সংবাদআমাদের জীবনবোধ :শিক্ষা ও নৈতিকতা / নাজনীন রহমান

আমাদের জীবনবোধ :শিক্ষা ও নৈতিকতা / নাজনীন রহমান

আমাদের জীবনের পুরো প্রেক্ষাপট জুড়েই শিক্ষা ও নৈতিকতার গুরুত্ব অপরিসীম । বলা যায় শিক্ষা ও নৈতিকতা জীবনের ভিত্তি যা ফুলে ফলে বিকশিত করে। শিক্ষাকে যদি একটি সমৃদ্ধ গাছ মনে করি এর এর ফুল এবং ফল হলো নৈতিকতা। এ শিক্ষার রূপরেখা অবশ্যই কেবল সার্টিফিকেট ধারে সার্টিফিকেটধারীএকজন ব্যক্তি নন। তিনি একজন ব্যক্তিত্ব যার সঙ্গে অন্তরঙ্গ হলে মনে হবে personality ইষ্টুম্যান হোয়াট পারফিউম ইসটু ফ্লাওয়ার। এতই সুরভিত পরিপাঠ্য মানুষ হবেন তিনি যে নিমিষেই সংবেদনশীলদের দৃষ্টিনন্দিত হবেন।

বলাই বাহুল্য জীবনের লালিতলালিতত্ উদ্ভাসিত হয় প্রকৃত শিক্ষা ও নৈতিকতার মধ্য দিয়ে। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ বলেছিলেন, তরুলতা সহজেই তরুলতা আর মানুষ প্রাণপণ চেষ্টা পর মানুষ। সে অর্থে জীবন গঠনে শিক্ষা ও নৈতিকতার কোন বিকল্প নেই।

শিক্ষাকে কিংবা নৈতিকতাকে খুব কঠিন বিষয় বলে ভাবার আসলে অবকাশ নেই । শিক্ষা তাই শিক্ষা তাই যা মানুষকে কখনোই কষ্ট দেয় না। একজন মানুষের জীবনের আদিগন্ত জুড়ে যতগুলো মানুষ আছে তাদেরকে কোনভাবেই আহত না করা, কষ্ট না দেওয়া এগুলোই শিক্ষা ও নৈতিকতার বিষয়। কারণ প্রকৃত শিক্ষা মানুষকে সৎ, সাহসী, উদ্যোগে উদ্যোগী,সহযোগী, সহমর্মী, নিষ্ঠাবান অনেক ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গীরদিগন্ত উন্মোচন করে দেয়। কারণ আমরা জানি, education is the natural development is the natural development oriented and balance balanced growth of All Powers nd facilities ab human beings., অর্থাৎ মানুষের সর্বপ্রকার শক্তি ও সামর্থেরস্বাভাবিক, এবং সুসমঞ্জস্য বৃদ্ধির নাম শিক্ষা। আর শিক্ষার চারা গাছেই নৈতিকতার কলি প্রজ্জল হয়ে ওঠে।
প্রকৃত শিক্ষা ও নৈতিকতা আমাদের জীবনবোধকে সঠিক পথে নিয়ে যায়। শিক্ষা মানুষের ভেতরে র দৃষ্টিকে আলোকিত করে তোলে যে আলোয় নৈতিকতার পথ উন্মোচিত হয়। একজন মানুষ যখন জানে যে, মিথ্যা পাপের মা এবং হৃদয় ও চিত্ত দিয়ে জীবনকে উপলব্ধি করতে চায় সে তখন মিথ্যা বলবে না। এখানে মিথ্যা পাপের মা এটা হল শিক্ষা সে কারণে মিথ্যা বলবে না এটা হল নৈতিকতা। এভাবে শিক্ষা ও নৈতিকতাকে একি মানদন্ডে বিচার করা যায়। আর তাই শিক্ষা ও নৈতিকতার প্রেক্ষাপট জুড়ে যার জীবন বোধ, তিনি সত্যিকার অর্থে সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব মানুষ।

জীবনের একটি ইতিবাচক উপলব্ধি হলো নৈতিকতা যার জন্ম প্রকৃত শিক্ষা র আঁতুড় ঘরে। নৈতিকতা এবং নেয় বোধ বানাইবিচার খুব কাছাকাছি অনুভূতি। আমাদের Utopian philosopher Plato ” to do a function for which he is nature is best adapted is called justice “. তিনি আরো বলেছিলেন, যার যার প্রাপ্য তাকে তা তুলে দেওয়াওমেয়ে বদ ন্যায় বোধ।মে বোধ নবোদ বা ন্যায়বিচার যাই বলি না কেন মূলত নৈতিকতা থেকেই উৎসরন। ন্যায়বিচার বোধের সৃষ্টি ও প্রকৃত শিক্ষা থেকেই। শিক্ষা মানুষকে দারুন হ্যাঁ মানুষকেদারুন ভাবে সাহায্য করে কোনটি গ্রহণীয় কোনটি গ্রহণীয়, কোনটি পরিত্যাজ্য তা বিচার করতে বিচার করতে। পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআনে আছে আল কোরআনে আছে ‘ পড় সেই প্রভুর নামে যিনি তোমাকে সৃষ্টি করেছেন ” । আর এই পড়ার মধ্যদিয়ে নিজেকে জানারকথা বলেছেন। কে আমি, কি আমি, কি করা উচিত আমার। কিভাবে আমার সৃষ্টি হল ,আমার জীবনেরলক্ষ্য কি, জীবনের তাৎপর্য কি, ইত্য জীবন ঘন প্রশ্নের মুখোমুখি হই যখন আমরা যখন তখনই প্রশ্নের সমাধানের প্রসঙ্গটি আসে। আরনৈতিক শিক্ষা বা প্রকৃত শিক্ষা যাই বলি না কেন এগুলোই এনে দেয় আমাদের সঠিক সমাধান এনে দেয।

জীবনেরপদ পিঠে দাঁড়িয়ে খুটে খুটেজীবনকে অন্বেষণের নামে শিক্ষা। সবকিছুকে মূল্যায়নের দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে দেখতে হবে। বইয়ে কতকিছু পড়লাম আর হুবহু তাই লিখে দিয়ে আসলাম, এতে নিজেকে দুঃখিত বলে দাবি করা যায় বটে কিন্তু জীবনধর্মী শিক্ষার জন্যপ্রয়োজন মন ও মেধা।
শিক্ষা নৈতিকতার উন্নয়ন ঘটায়। আর সে উন্নয়নহৃদয় ও মেধার উৎকর্ষ সাধন করায় যা সংযোজনায় জীবন হয়ে ওঠে চমৎকার আকর্ষণীয় তাকে আমরা ব্যক্তিত্ব বলি। ব্যক্তিত্ব এক ধরনের শক্তি এর প্রেক্ষাপটকে করে তোলে অত্যন্ত দীদীপ্তিময়।

সুতরাং সুতরাং সুতরা আমাদের জীবনবোধের পরিপাট্যের জন্য, সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব হিসেবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত ও উপস্থাপন করার জন্য নৈতিক শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। তাই, আমরা পড়ব, পড়াটাকে বিশ্লেষণ করব এবংতারপর ধারণ করব এবং অন্যকে এই শিক্ষার আলোয় আলোকিত করব। পন্ডিত h i vsndyke বলেছেন ” the true object of education should be to train 1 to think clearly and act rightly “. শিক্ষাই আমাদের প্রশিক্ষিত করে তোলেকিভাবেসঠিক চিন্তা ও সঠিক কাজ করতে হয়।

নৈতিকতা তাই যা গ্রহণ করা উচিত বলে বিবেক মনে করে। কারণ, বিবেক বোধের ভিত্তি হল প্রকৃত শিক্ষা।,তাই আমরা ভাববো এই একটিমাত্র ক্ষণস্থায়ী জীবনের প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে কাকে কতটা কি দিতে পারলাম,,, কি করা উচিত, কি করা উচিত নয় সমাধান আসে বিবেক নামক একটি জাগ্রত শক্তি থেকে।
ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি গড়ে তুলতেও শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম। ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি মানুষকে খুব প্রাণবন্ত ও সজীব রাখে। প্রকৃত শিক্ষা প্রকৃত শিক্ষা নৈতিক মূল্যবোধ গড়ে তোলে। ফলে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি ও চিন্তা চেতনা হয় complexitমুক্ত। আর complexity মুক্ত জীবন জাপানি সুস্থ , স্বাচ্ছন্দ্যময় ও সার্থক জীবন।
সুতরাং সুন্দর সার্থক ও সম্পন্ন জীবনের প্লেটফর্ম তৈরি করতেআমাদের প্রয়োজন সঠিক শিক্ষা ও নৈতিকতারপ্রজ্জল জীবন বোধ।
ধন্যবাদ যারা আমার এই লেখাটি পড়বেন। – ফেসবুক থেকে নেওয়া

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment - spot_img